দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ফের বন্যা, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

16

আলাল হোসেন রাফি:: দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ::
এক পক্ষ ( ১৫ দিন)পাড় হতে না হতেই আবার ও বন্যার কবলে পড়েছেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার মানুষ । এখনও যেখানে নিম্নাঞ্চলের অনেক মানুষ পানিবন্ধী রয়েছেন সেখানে ভারীবর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলে নতুন করে পানি বাড়ায় কয়েকদিনের মাথায় আবারও বন্যা কবলিত হয়েছেন এই উপজেলার জনসাধারণ।

টানা বৃষ্টি আর পাহাড়ী ঢলে পানি বৃদ্ধি পেয়ে ইতিমধ্যে উপজেলার অধিকাংশ অঞ্চলে পানি প্রবেশ করেছে। করোনার এই দুঃখসময়ে ১৫ দিনের ব্যবধানে দ্বিতীয় ধাপে বন্যার আঘাতে জনজীবনে বিপর্যয় নেমে এসেছে।

সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, ভারী বর্ষণে সৃষ্ট বন্যায় উপজেলার নিম্নাঞ্চলের অধিকাংশ ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট, দোকানপাট, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় উপাসনালয় বানের পানিতে ডুবে গেছে। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন বানবাসী মানুষ। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষজন। বন্যার পানিতে গৃহবন্দি হয়ে পড়ায় আয়-রোজগার করতে পারছেন না তারা। এতে না খেয়ে থাকার উপক্রম দেখা দিয়েছে এসব মানুষদের। এছাড়া গ্রামীন সড়কগুলো পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় অধিকাংশ এলাকায় যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে জনদুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করছে।

এছাড়া শুকনো চারণভুমি না থাকায় গবাধিপশু নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন এই উপজেলার গৃহস্থরা।

উপজেলার পশ্চিম পাগলা ইউনিয়নের চন্দ্রপুর গ্রামের শফিক মিয়া বলেন, প্রথম ধাপের বন্যার পানিতে বসতঘরে কোমড় পানি ছিলো। মাত্র পানি নেমেছিল। ঘরেরর স্যাঁতস্যাঁতে পানি শুকায়নি এখনো। এর মাঝে আবার ও বন্যার পানিতে ঘর ডুবে গেছে। আমাদের কষ্ট দেখে কে?

ফের বন্যায় শফিক মিয়ার মত সহস্রাধিক পরিবার চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেবুন নাহার শাম্মী বলেন, যারা পানিবন্দি রয়েছেন তাদেরকে আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে। বন্যার সকল খবরাখবর জানাতে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে । বন্যা কবলিতদের মাঝে ত্রান বিরতন করা হচ্ছে।