কোম্পানীগঞ্জে শাহিন হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

24

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি, সিলেট: কোম্পানীগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ইলেকট্রিক্যাল ব্যবসায়ী শাহিন আহমেদের হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন পরিবার, স্বজন ও এলাকার সচেতন মহল।
বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় কোম্পানীগঞ্জ থানা বাজার পয়েন্টে এবং দুপুর সাড়ে ১২টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে আয়োজিত মানববন্ধনে তারা এ দাবি জানান।
এসময় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শামীম আহমদ, ইসলামপুর পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী জিয়াদ আলী, ইছাকলস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদুর রহমান সাজু, কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবিদুর রহমান, শামীম আহমদ, ইউপি সদস্য লিটন আহমদ, কবির আহমদ, নেছার মিয়া, তেরা মিয়া, গউছ মিয়া, শুকুর উল্লাহ, মজনু মিয়া, আছির আলী, আমির আলী, আলকাছ মিয়া, আশিক মিয়া, ফয়ছল আহমদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
মানববন্ধনে বক্তৃতায় নিহতের ভাই শামীম আহমদ বলেন, আমি বিমর্ষ, ক্লান্ত ও মর্মাহত। কথা বলার মানসিক শক্তিটুকু নেই। তবুও আমার ভাইয়ের হত্যাকারীদের বিচার চাইতে এখানে দাঁড়িয়েছি।
ঈদের দিন রাতে একটি সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী চক্র আমার ভাইকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। এই সন্ত্রাসী চক্র ঘটনার মাসখানেক আগে থেকে আমাকে ও আমার ভাইকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিলো। নিরাপত্তার কারণে থানায় একাধিক ডায়েরিও করেছিলাম। তবুও আমার ভাইকে বাঁচাতে পারলাম না। আজ খুনিরা ঘুরে বেড়াচ্ছে। আর আমরা বিচারের জন্য কেঁদে কেঁদে হাঁটছি।
প্রসঙ্গত, গত ১১ এপ্রিল ঈদের দিন দিবাগত রাত পৌনে ৮টায় উপজেলার ইছাকলস নিজগাঁও গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হন শাহিন। তিনি ওই গ্রামের আলমাছ আলীর পুত্র। এ ঘটনায় গত ১৫ এপ্রিল নিহতের ভাই শামীম আহমদ বাদী হয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় নিজগাঁওয়ের মরম আলী, আনোয়ার হোসেন, শাহেদ আহমদ, জামাল মিয়াসহ ১০জনকে আসামি করা হয়।
কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি গোলাম দস্তগীর আহমেদ জানান, আসামিদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। শীঘ্রই তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।