যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ: কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে এবার বাংলাদেশি শিক্ষার্থী বহিষ্কার

0
বাংলাদেশি শিক্ষার্থী মায়মুনা ইসলাম নুহা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশি বাধার মুখেও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে চলছে ইসরাইলবিরোধী বিক্ষোভ। এতে অংশ নিচ্ছেন অনেক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীও। এর মধ্যেই মায়মুনা ইসলাম নূহা নামে কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশি এক ছাত্রীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরের ম্যানহাটনে কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। ৩৬ একর জায়গাজুড়ে মূল ক্যাম্পাসের চারপাশে এখন পুলিশ ও নিরাপত্তাকর্মীদের ব্যাপক উপস্থিতি। বৈধ পরিচয়পত্র ছাড়া কাউকে ভেতরে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
তবে ভেতরে অবস্থান নিয়েছেন বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি চলছে ক্লাস ও পরীক্ষাও। গাজায় ইসরাইলি হত্যাযজ্ঞের বিরুদ্ধে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছেন বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীও। এরইমধ্যে আন্দোলনের শুরুতে প্রতিবাদকারী বাংলাদেশি ছাত্রী মায়মুনা ইসলাম নূহাকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবুও থেমে নেই আন্দোলন।
শুধু কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় নয়, যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত ৫০টি বিশ্ববিদ্যালয় এখন ইসরাইলবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল। দিন দিন নতুন নতুন বিশ্ববিদ্যালয়ে ছড়িয়ে পড়ছে আন্দোলন। কোথাও কোথাও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষও হয়েছে শিক্ষার্থীদের। গ্রেফতার করা হয়েছে অনেককে।
এদিকে, গাজা ইস্যুতে নিজ দেশের বিক্ষোভে চরম বিপাকে পড়েছে বাইডেন প্রশাসন। শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলন নিয়ে এতদিন মুখ না খুললেও, অবশেষে নীরবতা ভেঙেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।
এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ করা যেকোনো নাগরিকের অধিকার। তবে অবশ্যই আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে।
যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজারো বাংলাদেশি শিক্ষার্থী আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়েই সক্রিয়ভাবে প্রতিবাদে অংশ নিচ্ছেন অন্তত ১০০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী। তারা বলছেন, দাবি না মানা পর্যন্ত তাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।