শিলাবৃষ্টিতে দোয়ারাবাজারে সহস্রাধিক ঘর ক্ষতিগ্রস্ত

15

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ ব্যাপক শিলা বৃষ্টিতে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের ১২টি গ্রামের সহস্রাধিক টিনের বাড়ি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও মসজিদসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
রবিবার বিকালে শিলাবৃষ্টির সময় এ ক্ষয়ক্ষতি হয়।
গ্রামগুলোর মধ্যে উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের বাশতলা,চৌধুরী পাড়া,মৌলারপাড়, কলোনি, নতুন বাশতলা, ঝুমগাও, পেকপাড়া বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
কলোনি গ্রামের মাহমুদ আলী বলেন, শিলা পড়ে টিনের চালে অসংখ্য বড় বড় ছিদ্র হয়ে গেছে।
বৃষ্টির সঙ্গে বড় বড় (তিন থেকে চারশ গ্রাম ওজন) শিলাও পড়তে থাকে। অনেকের ঘরের ভেতরের মালামাল নষ্ট হয়েছে।
বাশতলা গ্রামের প্রবীণ কৃষক বীর মুক্তিযোদ্ধা ইলিয়াছ মিয়া (৮০) বলেন, আমার বয়সে কোনদিন এতো বড় শিলা দেখিনি। পাথরের আকারের মতো এক একটা শিলা।
হকনগর বাজারের ব্যবসায়ী আনোয়ার ভুইয়া বলেন, টিন দিয়ে তৈরি বাজারের প্রায় শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান শিলা বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বৃষ্টির পানিতে মালামাল ভিজে ব্যবসায়ীদের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে।
বাংলাবাজার ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম ভুইয়া ও ধন মিয়া বলেন, শিলা বৃষ্টিতে বাশতলা অঞ্চলের যেসব বসত ঘর টিন দিয়ে তৈরি ছিল তার অধিকাংশ শিলা পড়ে ছিদ্র হয়ে গেছে। ঘরের ভেতর থেকে এখন আকাশ দেখা যাচ্ছে। ওইসব ঘর একেবারেই বসবাসের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে।
বাংলাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আবুল হোসাইন বলেন, বাশতলা অঞ্চলে রবিবারের শিলা বৃষ্টিতে প্রায় সহস্রাধিক টিনের তৈরি স্থাপনার চাল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যা বসবাসের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। আকষ্মিক এ শিলাবৃষ্টিতে সবচেয়ে বেশি অসুবিধায় পড়েছে এখানকার নিন্ম আয়ের মানুষ।